ব্যক্তিত্ব

তাঁর নামেই 'রাসবিহারী অ্যাভিনিউ' : আইনজীবী, শিক্ষাব্রতী রাসবিহারী ঘোষ

টিম সিলি পয়েন্ট Oct 29, 2022 at 9:02 am ব্যক্তিত্ব

দক্ষিণ কলকাতার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সরণীটি আগে পরিচিত ছিল 'মেন সয়্যর রোড' বা বালিগঞ্জ অ্যাভিনিউ নামে। পরে তাঁর নামানুসারেই রাস্তাটি 'রাসবিহারী অ্যাভিনিউ' নামে চিহ্নিত হয়। তিনি রাসবিহারী ঘোষ। কলকাতা হাইকোর্টের বিখ্যাত আইনজীবী, শিক্ষাব্রতী, সমাজকর্মী। সারাজীবনে প্রচুর রোজগার করেছেন এবং অকাতরে দান করেছেন শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে, এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে।

রাসবিহারী ঘোষ ১৮৪৫ খ্রিস্টাব্দে পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষে জন্মগ্রহণ করেন। ছাত্র হিসেবে তিনি ছিলেন অসাধারণ মেধাবী। বাঁকুড়া হাই স্কুল থেকে ১৮৬২ সালে প্রথম স্থান অধিকার করে এন্ট্রান্স পাশ করেন। ১৮৬৫ সালে কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে পাশ করেন বিএ। ১৮৬৬ খ্রিস্টাব্দে এমএ পরীক্ষায় ইংরেজিতে প্রথম স্থান অধিকার করেন। স্বর্ণপদক-সহ আইন পাশ করে তিনি প্রথমে বহরমপুর কলেজে অধ্যাপনা শুরু করেন। তারপর ১৯৭২ সালে কলকাতা হাইকোর্টে ওকালতি শুরু করেন। ১৮৭৫ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের 'ঠাকুর আইন অধ্যাপক' হয়ে ভারতে মর্টগেজ আইন বিষয়ে যেসব মূল্যবান বক্তৃতা দিয়েছিলেন সেইগুলি একত্রে মুদ্রিত হয়ে মর্টগেজ আইন সম্বন্ধে প্রামাণ্য গ্রন্থ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। ১৮৮৪ সালে তিনি ডক্টরস অব ল’ ডিগ্রিতে সম্মানিত হন। তিনি বঙ্গীয় আইন পরিষদের সদস্য (১৮৯১-৯৪, ১৯০৬-১৯০৯) এবং ভারতীয় কাউন্সিলের সদস্য ছিলেন। ১৯০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত জাতীয় শিক্ষা পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা-সভাপতি ছিলেন তিনি। আজীবন তিনি এই প্রতিষ্ঠানের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। 

ভারতের জাতীয় আন্দোলনের সঙ্গে রাসবিহারী ঘোষের সারাজীবন সম্পর্ক ছিল। তিনি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সদস্য ছিলেন। ১৯০৭ সালে সুরাটে ও ১৯০৮ সালে মাদ্রাজে অনুষ্ঠিত কংগ্রেস অধিবেশনে সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯১৫ সালে ব্রিটিশ সরকারের থেকে 'স্যার' উপাধি পান।  

আরও পড়ুন : ভারতে আধুনিক বায়োকেমিস্ট্রির জনক বীরেশচন্দ্র গুহ / মৃণালিনী ঘোষাল 

রাসবিহারী ঘোষের দানধ্যানের কথা সুবিদিত। যাদবপুরে ন্যাশনাল কাউন্সিল অফ এডুকেশন (এনসিই) প্রতিষ্ঠার জন্য তিনি তেরো লাখ টাকা দান করেন। সেই প্রতিষ্ঠানই পরে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত হয়। জাতীয় শিক্ষা পরিষদকে বারো লাখ ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়কে দশ লাখ টাকা দান করেন। ১৯২১ সালে তাঁর মৃত্যু হয়।  ২০১০ সালে খণ্ডঘোষ সিডি ব্লকের উখরিদ গ্রামে তাঁর স্মৃতিতে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে স্যার রাসবিহারী ঘোষ মহাবিদ্যালয়।

.......................... 

#Rash Behari Ghosh #স্যার রাসবিহারী ঘোষ #Rashbihari Avenue #silly পয়েন্ট

Leave a comment

All fields are required. Comment will appear after it is approved.

trending posts

newsletter

Connect With Us

today's visitors

51

Unique Visitors

121575