ফিচার

ডাইনো-ঘাতক গ্রহাণুই ডেকে এনেছিল পৃথিবীর ইতিহাসে ভয়ংকরতম সুনামি

টিম সিলি পয়েন্ট 18 days ago ফিচার ৮৪

৬৫ মিলিয়ন বছর আগে পৃথিবীর বুকে আছড়ে পড়া এই গ্রহাণুই ডাইনোসর সহ সে সময়ের প্রায় ৭০ শতাংশ প্রাণকে মুছে দিয়েছিল।সাম্প্রতিক একটি গবেষণা বলছে, Chicxulub নামের এই গ্রহাণু নাকি সে সময় এমন এক সুনামির জন্ম দিয়েছিল যা পৃথিবী আগে বা পরে কোনোদিন প্রত্যক্ষ করেনি।

এখন যেখানে মেক্সিকো, সেখানেই আছড়ে পড়েছিল সৌরমণ্ডলের বাইরে থেকে আসা এই বিশালবপু গ্রহাণু। মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের মহাসাগরবিদ মলি রেঞ্জ (Molly Range)-এর নেতৃত্বাধীন একটি গবেষক দলের সাম্প্রতিক গবেষণা সেটাই বলছে। আছড়ে পড়া গ্রহাণুটি যে ভূপৃষ্ঠকে ব্যাপকভাবে তরঙ্গায়িত করেছে, সে প্রমাণ আগেই পাওয়া গিয়েছিল। এখন এই সুনামির ঘটনা সামনে আসায় মহাসাগরীয় ও মহাদেশীয় পাতগুলির অবস্থান পরিবর্তন নিয়ে গবেষণা গতি পাবে। গবেষকরা গ্রহাণুটি আছড়ে পড়ার পর প্রথম দশ মিনিটের প্রভাব পর্যালোচনা করে একটি মডেল নির্মাণ করেছেন। দেখা গেছে ২০০৪ সালে ইন্দোনেশিয়ার সুনামির থেকে অন্তত ৩০ গুণ বেশি শক্তিশালী ছিল। সর্বোচ্চ ঢেউটির উচ্চতা ছিল ৩২৮ ফিট (১০০ মিটারেরও বেশি)। সবচেয়ে গতিসম্পন্ন ঢেউয়ের গতি ছিল সেকেন্ডে ১০০ মিটার। পৃথিবীকে প্রায় ছিঁড়েখুঁড়ে দেওয়া এই সুনামি মহাসাগরের তলদেশে উল্লেখযোগ্য ভূ-গাঠনিক পরিবর্তন এনেছিল। তাছাড়া গোটা পৃথিবীর অর্ধেকেরও বেশি ভূমিতে সম্ভবত ছড়িয়ে দিয়েছিল মহাসাগরীয় অধঃক্ষেপ (sediment)।


ইউকাটান পেনিনসুলায় সলিল সমাধিতে থাকা এই গ্রহাণু ভূ-মহাসাগরীয় ইতিহাস (Paleoceanography) চর্চার এক নতুন দিগন্ত খুলে দেবে বলেই আশা করা যাচ্ছে।

.................................

#Tsunami #Chicxulub asteroid #Dinosaur #science

Leave a comment

All fields are required. Comment will appear after it is approved.

trending posts

newsletter

Connect With Us

today's visitors

56

Unique Visitors

121579